• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
খাগড়াছড়ি পৌর নির্বাচন: রফিকের বিরুদ্ধে সাবেক এমপি ওয়াদুদ ভূঁইয়া’র ব্যাপক অভিযোগ                    শনিবার খাগড়াছড়ি পৌরসভা নির্বাচন, ভোট গ্রহন হবে ইভিএমে                    সংঘাত, হানাহানি, রক্তপাত নয়, মৈত্রী ভাব নিয়ে আগামী প্রজন্মকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে-পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি                    রাঙামাটিতে অনুরুদ্ধ বন বিহারে আটাশ বুদ্ধ পুজা, বুদ্ধ মূর্তিদান, সংঘদানসহ নানান ধর্মীয় অনুষ্ঠান                    যারা ২১ বছর বুকে পাথর বেঁধে দল করেছে, সেসব ত্যাগীদের মূল্যায়ন করতে হবে -তথ্যমন্ত্রী                    নারী ও শিশুদের নির্যাতন নিপীড়নের প্রতিবাদে রাঙামাটিতে মোমবাতি প্রজ্জলন ও মানববন্ধন                    পানছড়িতে চাঙমা লেখা কোর্সের সার্টিফিকেট বিতরণ                    জুরাছড়িতে পুষ্টি সমন্বয় কমিটি গঠন                    বরকল পুষ্টি সমন্বয় কমিটি গঠন ও পরিকল্পনা প্রণয়ন কর্মশালা                    রাঙামাটি পৌর সভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগে প্রার্থী আকবর হোসেন চৌধুরী                    ৮ দফা বাস্তবায়নসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেতন ফি মওকুফের দাবিতে রাঙামাটিতে ছাত্র ইউনিয়নের মানববন্ধন                    সাংবাদিক সুশীল প্রসাদ চাকমার বাবা বিজক্ক চাকমার পরলোগমণ                    রাজস্থলীতে এলজিএসপির বরাদ্দকৃত ইলেকট্রনিকস সামগ্রী বিতরণ।                    খাগড়াছড়িতে পাহাড়ি নেতা মংসাজাই চৌধুরী’র ৩২তম স্মরণ বার্ষিকী অনুষ্ঠিত                    বরকলে উপজেলা পর্যায়ে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে খাদ্য নিরাপত্তা শীর্ষক সেমিনার                    রাঙামাটির কতুকছড়িতে পাথর বোঝাই ট্রাকে বেইলি ব্রীজ ভেঙ্গে গিয়ে চালকসহ ৩ শ্রমিকের মৃত্যু                    রাঙামাটির কৈতুরখিল মারমা পাড়ায় অসহায় ও ছিন্নমুল মানুষের পাশে ফ্রাংকো হিল চাইল্ড হোম                    বরকলে যুবদের নিয়ে ৫ দিন ব্যাপী ভ্রাম্যমাণ প্রশিক্ষণ শুরু                    রাজস্থলীতে অস্ত্রসহ জেএসএস কর্মীকে আটক করেছে নিরাপত্তা বাহিনী                    রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে রাজি হলেও মায়ানমারের আন্তরিকতার কারণে তা আটকে রয়েছে-পররাষ্ট্র মন্ত্রী                    মহালছড়িতে বাছড়ির দুর্গম এলাকায় বাপ্পী খীসার শীতের উপহার                    
 

ঈদের ছুটিতে খাগড়াছড়ির বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে দর্শনার্থীদের ভীড়

স্টাফ রিপোর্টার খাগড়াছড়ি : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 18 Jun 2018   Monday

ঈদের ছুটিতে খাগড়াছড়িতে বিনোদন স্পটগুলোতে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। পর্যটন স্পট আলুাটলা, রিছাং ঝরনা ও জেলা পরিষদ পার্ক এ লোকে লোকারণ্য।

 

সংশ্লিষ্ট সূ্ত্রে জানা যায়,গেলো সপ্তাহের বন্যা এবং তার আগে থেকে চলমান সন্ত্রাস আর প্রাণহানির ঘটনায় খাগড়াছড়ির পর্যটন খাতে নেতিবাচক প্রভাব বিরাজ করছিল। একই কারণে জেলার জনপ্রিয় পর্যটন স্পটগুলোতেও দর্শনার্থীর সংখ্যা ব্যাপক হ্রাস পায়। কিন্তু চলতি ঈদের বন্ধে পরিস্থিতি সম্পূর্ন পাল্টে গেছে। ঈদের দ্বিতীয় দিনে খাগড়াছড়ির বিভিন্ন পর্যটন স্পটগুলো দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়। পর্যটন স্পট আলুাটলা, রিছাং ঝরনা ও জেলা পরিষদ পার্ক এ স্থানীয়দের পাশাপাশি অনেক দূর-দূরান্ত থেকেও এসেছেন নারী-পুরুষ-কিশোর-কিশোরীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার দর্শনার্থী।


ফেনী থেকে বেড়াতে আসা পর্যটক আজিম হাসান জানান, সপরিবারে নিজের গাড়িতে খাগড়াছড়ি বেড়াতে এসেছেন। এখানকার স্পটগুলো ঘুরে মিরসরাইয়ের মহামায়া হ্রদ ঘুরে বাড়ি ফিরবেন।


চট্টগ্রাম থেকে আসা স্কুল শিক্ষকা হাসনা হেনা জানান, গণ পরিবহনে স্বামী-সন্তানদের নিয়ে খাগড়াছড়ির আলুটিলার রহস্যময় সুড়ঙ্গ, রিছাং ঝরনা এবং জেলা পরিষদ পার্ক-এ বেড়াবেন।


বেসরকারি ট্যুর অপারেটর প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন আলুটিলা’র মতো ব্যস্ততম পর্যটন স্পটে পাহাড় থেকে অবৈধভাবে সংগৃহীত অপরিণত পাথরের স্তুপ দেখে দু:খ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, নিশ্চয়ই কর্তৃপক্ষ এসব পাথর দিয়ে এখানে হয়তো সৌন্দর্য্য বধনের চিন্তা করছেন। এটি স্ববিরোধী এবং একই সাথে আইনের বরখেলাপ।


বেড়াতে আসা পর্যটক শহিদুল ইসলাম, জানান এতো সুন্দর প্রাকৃতিক ঝরনা! কতো লোক দেখতে আসেন অথচ আসা-যাওয়ার সড়কটি যেনো একটি মরণফাঁদ।


আলুটিলা পর্যটন স্পটের টিকেট কাউন্টারের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারী পীযুষ ত্রিপুরা জানান, দেড় হাজারের মতো টিকেট বিক্রি হয়েছে। যা ‘পিক আওয়ার’-এ সর্বোচ্চ।


জেলা পরিষদ পার্কের কর্মকর্তা ইমন ত্রিপুরা জানান, উত্তর-দক্ষিণ দুই কাউন্টারে মিলে বিকেল পাঁচটা নাগাদ দুই হাজার পাঁচ’শর কাছাকাছি টিকেট বিক্রি হয়েছে।


খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক মো: রাশেদুল ইসলাম জানান, আলুটিলা এবং রিছাং ঝরনা এলাকায় নিরাপত্তা, পাবলিক টয়লেট, লাইটিং, ওয়াশরুম এবং পার্কিংসহ সব ধরনের সেবার মান বাড়ানো হয়েছে। ফলে দর্শনার্থীরা টিকেটের বিনিময়ে যে টাকা দেন তার চেয়ে বেশি আনন্দ উপভোগ করতে পারছেন।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

আর্কাইভ