• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
কাপ্তাইয়ের অতি বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্হ ৯ পরিবারকে টেউটিন ও নগদ টাকা প্রদান                    নানিয়ারচরের ঘিলাছড়িতে এলজিসহ আটক ২                    স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ-সমাবেশ                    আলীকদমে তিন দিনের ফলদ ও বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন                    আলীকদমে হাসপাতালের জমি উদ্ধারে গঠিত তদন্ত কমিটির কাজ শুরু                    খাগড়াছড়িতে তথ্য অধিকার বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত                    লামায় মুক্তিযুদ্ধে নিহত ৩০ লাখ শহীদের স্মরনে ৩০ লক্ষ বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি                    রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে সেবা গ্রহীতাদের সাথে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের যৌথ সভা                    রাঙামাটিতে যুবদলের বিক্ষোভ-সমাবেশ                    কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা ও শিক্ষকদের লাঞ্ছিতের ঘটনায় পিসিপি’র নিন্দা                    বান্দরবানের কোন পাহাড় থেকে আর এক কোদাল মাটিও কাটা যাবে না-জেলা প্রশাসক                    মাটিরাঙ্গায় দুর্বৃত্তের গুলিতে যুব সমিতির কর্মী নিহত                    ঢাকায় গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম ও শ্রমজীবী ফ্রন্টের বিক্ষোভ                    সাংস্কৃতিক চর্চায় জড়িত থাকলে কোন যুবক মাদকাসক্ত হবে না-সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী                    খাগড়াছড়িতে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন                    রাঙামাটিতে রথযাত্রা উৎসব                    দেশবরেণ্য চিত্রশিল্পীদের নিয়ে রাঙামাটিতে সপ্তাহ ব্যাপী আর্ট ক্যাম্পের উদ্বোধন                    লামায় ২০ বসত ঘর গুঁড়িয়ে দিয়েছে বন্য হাতির পাল                    রাঙামাটিতে আস-সুন্নাহ ফাউন্ডেশনের যাত্রা শুরু                    দেশবরেণ্য চিত্রশিল্পীদের নিয়ে রাঙামাটিতে শনিবার থেকে সপ্তাহ ব্যাপী আর্ট ক্যাম্প শুরু হচ্ছে                    খাগড়াছড়িতে চঞ্চুমনি চাকমার উপর হামলার প্রতিবাদে তিন সংগঠনের বিক্ষোভ-সমাবশে                    
 

বান্দরবানে শতাধিক বাগানমালিকসহ দশ হাজার কাঠ শ্রমিক-কর্মচারী পড়েছেন বিপাকে

বান্দরবান প্রতিনিধি : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 24 Mar 2015   Tuesday

বান্দরবানে ব্যক্তিমালিকানার বন বাগানের জোত পারিমিট ও বৈধভাবে কাঠ সরবরাহের বিরদ্ধে অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র শুরু হওয়ায় পাহাড়ের প্রায় ১০ হাজার শ্রমিক-কর্মচারীসহ দুর্গম এলাকার শতাধিক আদিবাসী বাগান মালিকরা বিপাকে পড়েছেন।

 

চলমান বৈধ জোতপারমিট ও কাঠ ব্যবসার বিরুদ্ধে ইদানিং কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। ঢাকার একটি দৈনিক পত্রিকা ওইসব কুচক্রি মহলের যোগসাজশে অপপ্রচার ও উদ্দেশ্যমুলক মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করে শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করে তোলার হীন প্রচেষ্টা চালাচ্ছে বলে গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন সচেতন নাগরিকরা। এতে অবৈধ কাঠ পাচারকারী চক্র সক্রিয়  হয়ে উঠবে এবং সরকারি বনজ সম্পদ রক্ষাকরা কঠিন হয়ে পড়তে পারে বলেও শংকা প্রকাশ করেছেন বন বাগানের মালিকরা।

 

জেলার রুমা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারমম্যান এবং বম আদিবাসী নেতা জিমসিয়াম বম এবং থানছি উপজেলর সাংবাদিক অনুপম মারমা জানান, ব্যক্তিমালিকানাধীন বনজ বাগান থেকে সরকারি বিধিমোতাবেক পরিপক্ক বনজ সম্পদ কর্তন,আহরণ এবং সরবরাহের কার্যক্রম প্রচলিত নিয়মেই চলে আসছে দীর্ঘদিন ধরে।

 

রুমা বটতলী পাড়ার বাগান মালিক সামং মারমা ও কাঠ ব্যাবসায়ী আকাশ চৌধুরী জানান, সরেজমিন তদন্ত সাপেক্ষে প্রশাসন ও বন বিভাগের ইস্যুকৃত বৈধ পারমিট ও টিপি ব্যবহারের মাধ্যমে নদী ও সড়কপথে স্থাপিত বিপুল সংখ্যক নিরাপত্তা বাহিনী, বিজিবি,পুলিশ ও বন বিভাগের চেক পোষ্টের কর্মকর্তাদের পরীক্ষণ ভিত্তিতেই কাঠ সরবরাহ হচ্ছে জেলা সদরে। ফলে অবৈধ কাঠ পাচার বন্ধ হওয়ার পাশপাশি জেলার রুমা, থানছি এবং রোয়াংছড়ি উপজেলার প্রায় ৯০ শতাংশ আদিবাসী বাগান মালিকরা তাদেরই সৃজিত বন বাগানের গাছ ও কাঠ বিক্রিত অর্থে জীবন জীবিকা নির্বাহ এবং সন্তানদের লেখাপড়ার কাজে অর্থযোগান দিতে সক্ষম হচ্ছেন।

 

থানছি মদুকসে পাড়া বাগানের মালিক চিংসা মারমা বলেন, জোতপারমিটের মাধ্যমে বৈধভাবে তারা নিজের বাগানের গাছপালা বিক্রি করে আসছেন। এ অবস্থা কোন কারণে রুদ্ধ হয়ে গেলে এলাকার কাঠের সাথে সম্পৃক্ত প্রায় ১০ হাজার শ্রমিক-কর্মচারী এবং শতাধিক বাগান মালিক চরম অর্থসংকটের সম্মুখিন হবেন। ফলে দেখা দিতে পারে চরম অস্থিরতা ।

 

বান্দরবান পাল্পউড প্লান্টেশন বনবিভাগরে বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোল্যা রেজাউল করিম স্বাক্ষরিত এক  সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের নীতিমালা অনুসরণ ও নির্দেশনায় এবং স্থানীয় প্রশাসনের আইনি সহযোগিতার মাধ্যমে জেলায় চালু রয়েছে জোতপারমিট প্রথা। তারই ভিত্তিতে রুমা,থানছি,রোয়াংছড়ি ও আলীকদম উপজেলার নানাস্থান থেকে পাহাড়িদের ব্যক্তিমালিকানার বন বাগান থেকে সম্পুর্ণ বৈধভাবেই পরিপক্ক গাছ কর্তন,আহরণ এবং সরবরাহ করা হয় জেলা সদরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায়। ফলে এখানে সাংগু ও মাতামুহুরী সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে বা সরকারি বন বাগানের কোন গাছপালা কর্তন বা পাচারের কোন সুযোগ নেই। বন বিভাগের দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের অহেতুল হয়রানি ও সুনাম ক্ষুন্ন করার হীন উদ্দেশ্যেই অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

 

তিনি আরও জানান, এসব এলাকায় নিয়োজিত বন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নিরলসভাবে মাঠ পর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছেন। তারা সদায় প্রস্তুত রয়েছেন সরকারি বন রক্ষায় এবং যে কোন ধরনের অবৈধ কাঠ আটকে ।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

আর্কাইভ