• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
রাঙামাটিতে তিন নারী সংগঠনের যৌথ কাউন্সিল অনুষ্ঠিতঃ নতুন কমিটি গঠন                    কাউন্সিল আয়োজনে প্রশাসনের বাধাদানের প্রতিবাদে কতুকছড়িতে বিক্ষোভ-সমাবেশ                    রাঙামাটিতে ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত                    রাঙামাটি জেলা পরিষদ জেলাবাসীর আর্থসামাজিক উন্নয়নে কাজ করছে-বৃষকেতু চাকমা                    খাগড়াছড়িতে শেখ রাসেলের ৫৩তম জন্ম দিন পালিত                    পানছড়ি জনকল্যাণ বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবরদান অনুষ্ঠিত                    পাকুজ্জ্যাছড়ি ও সাপমারা প্রাথমিক বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন                    পাহাড়ে এখন শান্তির সুবাতাস বাইছে- রাঙামাটি রিজিয়ন কমন্ডার                    কাপ্তাইয়ে একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত                    সামাজিক ক্ষেত্রে অবদান রাখায় সাত গুনী ব্যক্তিকে সন্মাননা দিয়েছে মোনঘর                    রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে বিসিএস প্রশিক্ষণার্থীদের সাক্ষাত                    বরকলে গাঁজাসহ শ্বশুড় ও পুত্রবধু আটক                    গ্রীনহীলের কৃষি ও প্রাণী সম্পদ বিষয়ে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কর্মশালা                    জুরাছড়ির আমতলী ধম্মোদয় বন বিহারে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত                    পানছড়িতে জনসংঘ বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবরদান অনুষ্ঠিত                    চন্দ্রঘোনা খ্রীষ্টিয়ান হাসপাতালে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্ধোধন                    শিশুদের সৃজনশীল বিকাশে রাঙামাটিতে দুদিনের চিত্র প্রদর্শনী সমাপ্ত                    রাঙামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপকমিটির ১৮ সদস্যর পদত্যাগ                    রাঙামাটিতে শ্রমিকদলের বিক্ষোভ-মিছিল পুলিশি বাধায় পন্ড                    রাঙামাটি জেলা পরিষদের সাথে ইউএনডিপি’র বিশেষজ্ঞ দলের সৌজন্য সাক্ষাত                    খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ভূয়া সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে রাঙামাটিতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ                    
 

বিদ্যুৎ ভোগান্তিতে অতিষ্ঠ রাঙামাটিবাসি

Published: 10 Oct 2017   Tuesday

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সর্বোচ্চ রেকর্ড উৎপাদন ছিল ২৪২ মেগাওয়াট। অথচ একই সময়ে এখন উৎপাদন হচ্ছে মাত্র ১২৫ মেগাওয়াট। উৎপাদনের এই ফারাকে ভরা মৌসুমেও লাগাতার বিদ্যুৎ ভোগান্তিতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে রাঙামাটিবাসি। 

 

দীর্ঘদিন ধরে সঞ্চালন লাইন সংস্কার না হওয়ায় ত্রুটি অপসারণ ও পুনঃসংযোগ স্থাপনে দেখা দিচ্ছে নানান সমস্যা। ফলে প্রতিনিয়ত বাড়ছে লোডশেডিং। ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক জনজীবন। তবে এই সংকটের জন্য ১টি ইউনিটের উৎপাদন বন্ধ আর বৃষ্টি ও বজ্রপাতকেই দায়ি করছেন বিদ্যুৎ বিভাগ।


টানা বৃষ্টি এবং পাহাড়ি ঢলের কারণে কাপ্তাই হ্রদের পানি দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে এই সময়কে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য ভরা মৌসুম হিসেবে বিবেচনা করা হয়। বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য বেশ কিছুদিন ধরেই হ্রদে পানি ধরে রেখেছে পানিবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। এতে হ্রদবেবেষ্টিত রাঙামাটি শহর ও বেশ কয়েকটি উপজেলায় বসতবাড়ি, ফসলি জমি ও বিস্তীর্ণ এলাকা পানিতে ডুবে রয়েছে।


জলজটে জনদুর্ভোগের সাথে বিদ্যুৎ ভোগান্তিতে জনমনে ক্রমশ বাড়ছে ক্ষোভ। বসতবাড়ি ডুবে যাওয়া রসুলপুরের বাসিন্দা রাসেল আহমদ(৪৮) বলেন, বিদ্যুৎ উৎপাদনের নামে হ্রদে পানি আটকে জনদুর্ভোগ বাড়ানো হয়েছে। অথচ বিদ্যুৎ ভোগান্তি বন্ধের নাম নেই। শহরের বনরুপা এলাকার ব্যবসায়ী কাজল দে(৫০) বলেন, ভরা মৌসুমেও যদি লোডশেডিং চলতে থাকে তাহলে গরমের মৌসুমে কিভাবে বাঁচবো?


রাঙামাটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা গৃহবধু সাফিয়া বেগম (৪৫) বলেন, বিদ্যুৎ না থাকলে অসহনীয় গরমে প্রাণ বেড়িয়ে যেতে চায়। রাঙামাটি সরকারি কলেজের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থি সাদিয়া মুন বলেন, দিনেরাতে প্রায় সময় বিদ্যুৎ থাকে না।


রাঙামাটি পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী বলেন, কাপ্তাই লেকে পানি বাড়ায় বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ার কথা। তারপরও লোডশেডিং ও বিদ্যুৎ বিভ্রাট থামছেনা। বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়াতে না পারলে পানি ধরে রেখে জনদুর্ভোগ বাড়ানো হচ্ছে কার স্বার্থে।


রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল বলেন, বিপুল সংখ্যক মানুষকে বাস্তুচ্যুত করে কাপ্তাই পানিবিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প স্থাপন করা হয়েছে। অথচ এ বিদ্যুৎ সারা দেশকে আলোকিত করলেও ‘বাতির নিচে অন্ধকারে রাখা’ হচ্ছে রাঙামাটিকে।


কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী সমর তালুকদার জানান, বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাঁচটির মধ্যে চারটি ইউনিট থেকে ১২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। ৫ নম্বর ইউনিট বিকল থাকায় আরও ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন কম হচ্ছে।


রাঙামাটি বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সবুজ কান্তি মজুমদার দাবী করেন, সাম্প্রতিক বৃষ্টি ও বজ্রপাতের কারণে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন বিচ্ছিন্ন হয়ে বিঘ্ন ঘটছে। ধারণক্ষমতার বেশি লোডও সংকটের অন্যতম কারণ। তবে পুরনো এ লাইনটি সংস্কার হলেই সমস্যা কমে যাবে।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

আর্কাইভ