• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
রোয়াংছড়িতে আ’লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা                    বিলাইছড়িতে শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ                    পানছড়িতে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্সের সনদ পত্র বিতরণ                    রাঙামাটিতে বৃক্ষ রোপন অভিযান ও বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন                    আলীকদমে ফরমালিন বিরোধী অভিযান,এক মন আফ্রিকান মাগুর জব্দ                    কাপ্তাইয়ে কাদেরী উচ্চ বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ, ইউএনও`র নির্দেশে কাজ বন্ধ                    বরকলে বিজিবির উদ্যোগে বিভিন্ন মালামাল সামগ্রিও নগদ অর্থ বিতরন                    প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনায় বাঘাইছড়িতে মুনিরিয়া তবলীগ কমিটির মানবন্ধন                    চলে গেলেন খ্যাতিমান গেংখুলী রমনী মোহন চাকমা                    দুর্গম দুমদুম্যা ইউনিয়নের ৪টি গ্রামে ম্যলেরিয়া প্রকোপ                    বসন্ত পাংখোয়া পাড়ায় ১০দিনের ব্যবধানে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ২ জনের মৃত্যু                    সভাপতি পদে মোঃ মমতাজ মিয়া,সাধারণ সম্পাদক পদে রবিন বিশ্বাস নির্বাচিত                    পানছড়ির লোগাং ইউনিয়ন আ`লীগের কাউন্সিল সম্পন্ন                    রাঙামাটিতে সাংবাদিক হারুন চৌধুরীর বাসায় সন্ত্রাসী হামলা, থানায় মামলা                    পানছড়িতে চাকমা ভাষা কোর্সের সার্টিফিকেট বিতরণ                    অবৈধ অস্ত্রধারীরা সরকারের উন্নয়ন কাজে বাঁধা দিচ্ছে,জনগণকে প্রতিহতের আহ্বান                    দেড়যুগ পরও এমপিও হয়নি ঘাগড়া কলেজটি,মানবেতর জীবনযাপন করছেন শিক্ষক-কর্মচারীরা                    খাগড়াছড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে ব্যবসায়ী আহত                    ব্লাস্ট রাঙামাটি ইউনিটের উপকারভোগীদের সাথে পর্যালোচনা সভা                    বিলাইছড়ির মেরাংছড়া বিদ্যালয়ে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ                    কাপ্তাইয়ে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষ্যে র‍্যালি, আলোচনা সভা ও পোনা অবমুক্তকরন                    
 

এসএসসিতে রাঙামাটিতে জিপিএ-৫ সংখ্যা বাড়লেও অকৃতকার্যের সংখ্যা বেড়েছে

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 07 May 2019   Tuesday

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় এবার রাঙমাটি জেলার এবারে জিপিএ-৫ সংখ্যা বাড়লেও অকৃতকার্যের সংখ্যা বেড়েছে। এবার পাসের হার ৬৮ দশমিক ৬০ ভাগ।

 

জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের শিক্ষা ও কল্যাণ শাখা সূত্রে জানা গেছে, গেল বছরের তুলনায় এবার পাসের হার কমলেও জিপিএ-৫ বেড়েছে। এবার জেলা থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯৩ পরীক্ষার্থী। জেলার অন্যতম মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাঙামাটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে একজনও জিপিএ-৫ পায়নি। সবচেয়ে বেশী জিপিএ-৫ পেয়েছে কাপ্তাই নেভী উচ্চ বিদ্যালয়। ওই বিদ্যালয়ের জিপিএ-৫ সংখ্যা ৪৪। এর পর লেকার্স পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৬ জন। এবার জেলার মোট ১৯ কেন্দ্রে ৭৮ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে অংশ নিয়েছে ৮ হাজার ৪১০ পরীক্ষার্থী। আর শতভাগ সাফল্য অর্জন করেছে, কাপ্তাই নেভী হাই স্কুল ও রাঙামাটি লেকার্স পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

 

ফলাফলে দেখা যায়, এবার জেলার ১২ বিদ্যালয়ে পাসের চেয়ে অকৃতকার্য সংখ্যা বেশী। জেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ওই দুটিতে শতভাগ সাফল্য হলেও তুলনামূলকভাবে অন্যদের ফল তেমন সন্তোষজনক নয়। জেলা শহরের রাঙামাটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় এবং সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ফলাফল নিয়ে হতাশার কথা ব্যক্ত করেছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। অনেকের অভিযোগ ঐতিহ্যবাহী ওই দুটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দিন দিন পড়ালেখার কমে যাচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে যোগ্য ও দক্ষ প্রধান শিক্ষক না থাকায় বিদ্যালয় দুটি এ পরিস্থিতির মধ্যে পড়ছে।

 

ফলাফলে আরো দেখা গেছে, রাঙামাটি সদর উপজেলার খারিক্ষং উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৭ জন, বড়দাম উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫১ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৮ জন, সাপছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯২ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৪ জন, লংগদু উপজেলা সদরের বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬০ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৭ জন, বাঘাইছড়ি উপজেলার তুলাবান উচ্চ বিদ্যালয়ে ৭৮ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৭ জন, আমতলী উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪৫ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২১ জন, কাপ্তাই উপজেলার কে,আর,সি হাই স্কুলে ১১৮ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৫২ জন, সদর উপজেলার কুতুকছড়ি বড়মহাপুরম উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৯০ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৮৭ জন, জুরাছড়ি উপজেলার ভূবনজয় সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ২১৬ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৮৪ জন, বরকল উপজেলার বিলছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬২ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২২জন, সুবলং উচ্চ বিদ্যালয়ে ১১৬ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪৯ জন, বরুণাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে ১০৪ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৮ জন এবং হাজাছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫৪ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১২ জন পাস করেছে। এসব বিদ্যালয়ে বাকি পরীক্ষার্থীরা অকৃতকার্য।

 

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা উত্তম খীসা বলেন, জেলায় গতবারের চেয়ে এবার পাসের হার ভাল। জিপিএ-৫ অনেক বেড়েছে। তবে প্রত্যন্ত এলাকার বেশকিছু স্কুলে পাসের চেয়ে অকৃতকার্য বেশী। এর মূল কারণ, কিছু প্রাথমিক বিদ্যালয়কে হাই স্কুল করা হয়েছে। অথচ ওইসব স্কুলে ভাল শিক্ষক নেই। ফলে ফলাফল বিপর্যয় হয়েছে।

 

তিনি আরো জানান,আবার প্রত্যন্ত এলাকায় বেশকিছু হাই স্কুল আছে, যা বোর্ড থেকে পাঠদানের অনুমতি নেই। যে কারণে ওইসব স্কুলের শিক্ষার্থীদের অন্য স্কুল থেকে নিবন্ধন করিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়েছে। এ ছাড়া প্রত্যন্ত এলাকার স্কুলগুলোতে গণিত ও বিজ্ঞান বিষয়ে পড়ানোর জন্য ভাল শিক্ষক নেই। আর স্থানীয় রাজনীতির প্রভাবও বিস্তার ঘটে। এসব কারণে প্রত্যন্ত এলাকার বিদ্যালয়গুলোতে ফলাফল বিপর্যয় ঘটতে পারে।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ