রাঙামাটি আসনে নির্বাচনী ফলাফল প্রত্যাখান করলেন উষাতন তালুকদার

Published: 01 Jan 2019   Tuesday   

নজিরবিহীন কারচুপি, ভোট কেন্দ্র দখল, ভোটারদের বাধা প্রদান,মারধরসহ নানান অভিযোগ এনে নির্বাচনে ঘোষিত ফলাফল প্রত্যাখান করেছেন রাঙামাটির ২৯৯নং আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী  উষাতন তালুকদার।

 

মঙ্গলবার রাঙামাটি শহরের একটি রেষ্টুরেন্টে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে স্বতন্ত্র প্রার্থী উষাতন তালুকদার নির্বাচনে ঘোষিত এই  ফলাফল প্রত্যাখান করেন।

 

সংবাদ সন্মেলনে এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী উষাতন তালুকদার নির্বাচনকালীন আটককৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবী ছাড়াও  রাঙামাটি আসনের ২৯৯নং আসনের নির্বাচনের  ঘোষিত ফলাফল বাতিল করা না হলে পার্বত্য চট্টগ্রামে যে কোন অনাকাংখিত পরিস্থিতির জন নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণ দায়ী থাকবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

 

এসময় পার্বত্য জনসংহতি সমিতির  কেন্দ্রীয় নেতা সৌখিন চাকমা, সাথোয়াই মারমা, স্বতন্ত্র প্রার্থী উষাতন তালুকদারের নির্বাচনী প্রধান এজেন্ট উদয়ন ত্রিপুরা, পার্বত্য জনসংহতি সমিতির  সহ-সভাপতি কিশোর কুমার চাকমা, জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক নিলোৎপল খীসা, পার্বত্য চট্টগ্রাম মহিলা সমিতির  জড়িতা চাকমাসহ অন্যান্য নেতাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

সংবাদ সন্মেলনে উষাতন তালুকদার অভিযোগ করে বলেন,নির্বাচনী দিনে প্রশাসন, নির্বাচন কমিশন,আইন-শৃংখলা বাহিনী, নিরাপত্তা বাহিনী, তাতিন্দ্র লাল ও সুদর্শন চাকমার  নেতৃত্বাধীন সংস্কারপন্থীদের সহায়তায় রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা ব্যবহার করে আওয়ামীলীগ কর্মীরা লংগদু ১৭টি, বাঘাইছড়ি ১৭টি, কাপ্তাই ৬টি, কাউখালী ১৩টি,নানিয়ারচর উপজেলার ২টিসহ ৫৮টি ভোট কেন্দ্র  থেকে পোলিং এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে  অনিয়ম ও কারচুপির বিষয়ে প্রশাসনকে জানানো হলেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। নির্বাচনের দিনে লংগদু উপজেলা ও বাঘাইছড়িতে আওয়ামীলীগ সন্ত্রাসী ও তাতিন্দ্র লাল ও সুদর্শন চাকমার  নেতৃত্বাধীন সংস্কারপন্থী অস্ত্রধারীদের হামলায় প্রায় ৭০ জনের অধিক আহত হয়েছে।

 

সংবাদ সন্মেলনে উষাতন তালুকদার প্রশাসন, আইন-শৃংখলা ও নিরাপত্তা বাহিনীর সহায়তায় ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের ব্যাপক কারচুপি, জাল ভোট প্রদান, কেন্দ্র দখল, প্রতিপক্ষের পোলিং এজেন্টদের উপর হামলা ও কেন্দ্রে ঢুকতে না দেয়া, বের করে দেয়া, পরিচয়পত্র না থাকার অজুহাতে ভোট কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা প্রদানের মধ্য দিয়ে নজিরবিহীন ভোট ডাকাতির নির্বাচন কখনো গ্রহনযোগ্য হতে পারে না। এতে রাঙামাটি জেলাবাসীর সংবিধান স্বীকৃত ভোটাধিকার জোর করে কেড়ে নেয়া হয়েছে। এ ফলাফল রাঙামাটিবাসী কখনও গ্রহন করবে না।

তিনি অভিযোগ করে বলেন,

 

 

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : info@hillbd24.com
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত