লামা থেকে নিখোঁজ স্কুল ছাত্রী ৯ দিন পর সিলেট থেকে উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১

Published: 30 May 2018   Wednesday   

লামা থেকে নিখোঁজ সপ্তম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী মমিনা আক্তার (১২)কে  ৯ দিন পরে সিলেট জেলার জালালাবাদ মেট্রোপলিটন থানার টোকের বাজার থেকে মঙ্গলবার বিকাল ৫ টার সময় উদ্ধার করেছে লামা থানা পুলিশ। এ সময় মো. মনিরুল ইসলাম (৪২) নামক একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

 

গ্রেপ্তারকৃত মনিরুল ইসলাম খুলনা জেলার রুপসা থানার মেশাঘুনী এলাকার শ্রীফলতলা গ্রামের শেখ মো. মুনছুর আলী ও মোমেনা বেগমের ছেলে।

 

লামা থানার অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, গ্রেপ্তারকৃত ব্যাক্তির মোবাইল নাম্বার ট্রেকিং করে তাদের অবস্থান সনাক্ত ও বৈধ বিয়ে করানোর আশ্বাস দিয়ে কৌশলে সিলেটের জালালাবাদ এলাকার টোকের বাজার থেকে নিখোঁজ মমিনা আক্তারকে উদ্ধার করে তার সাথে থাকা মনিরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। লামা থানা  উপ-পরিদর্শক কৃষ্ণ কুমার দাস সঙ্গীয় এএসআই কামাল উদ্দিন সহ ৫ সদস্যের একটি টিম উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে।

 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও উদ্ধার অভিযান পরিচালনাকারী উপপরিদর্শক(এসআই) কৃষ্ণ কুমার দাস প্রথম আলোকে বলেন, গত ২০ মে রোববার গজালিয়া উচ্চ বিদ্যালয় হতে কোচিং ক্লাস শেষে বাড়ি ফিরে আসার সময় মো. মনিরুল ইসলাম মেয়েটিকে নিয়ে যায়। ঘটনার ৫ দিন পর ২৪ মে বৃহস্পতিবার মেয়ের সন্ধানে মা মিনারা বেগম লামা থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরি করে। এর ৩দিন পর জিডির সূত্রধরে গত ২৭ মে তারিখ লামা থানায় মনিরুল ইসলামকে প্রধান আসামী করে আরো তিন জনের বিরোদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা রুজু করা হয়।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : [email protected]
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত