কাপ্তাইয়ে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে উপজেলা প্রশাসন ও আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ

Published: 16 Apr 2018   Monday   

কাপ্তাইয়ের রাইখালী ইউনিয়নের নারাণগিরি বড়পাড়ায়  অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা  পরিদর্শন করেছেন উপজেলা পরিষদ,উপজেলা প্রশাসন ও রাইখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এবং সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

 

এদিকে মঙ্গলবার সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী ও রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি দীপংকর তালুকদার ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শনে যাবেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

 

 সোমবার ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শনে যান কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো: দিলবাজ হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুল আলম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত বিকাশ তনচংগ্যা, নুর নাহার বেগম,কাপ্তাই থানার ওসি(তদন্ত) নুরুল আলম,প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সুপ্তশ্রী সাহা,রাঙামাটির সাংসদের প্রতিনিধি বিক্রম মারমা,রাইখালী ইইপি চেয়ারম্যান সায়া মং মারমা।পরিদর্শন শেষে সরকারের ত্রান ও পূর্নবাসন মন্ত্রনালয়ের পক্ষে  ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিটি পরিবারকে নগদ একহাজার টাকা ও ২০ কেজি চাল করে দেওয়া হয়।এদিকে, রাইখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো: ইউসুপ কার্বারীর নেতৃত্বে ছয় সূদস্যের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তারা হলেন ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক বাপ্পা বড়ুয়া,সহ সভাপতি জামাল উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক মো: রাসেল, দপ্তর সম্পাদক আবুল খায়ের, দপ্তর সম্পাদক উথোয়াই প্রু মারমা। জেলা আ"লীগ সভাপতি দীপংকর তালুকদারের নির্দেশে  ক্ষতিগ্রস্থ   পরিবারগুলো যাতে ৩/৪ দিন খেতে পারে, সে হিসেবে চাল,ডাল,তেল, আলুসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী প্রতিটি পরিবারের মাঝে বিতরণ করেন।

 

 

এদিকে মঙ্গলবার সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শনে যাবেন বলে ইউনিয়ন আ"লীগ সাধারণ সম্পাদক মো:ইউসুপ কার্বারী এ প্রতিনিধিকে নিশ্চিত করেছেন।

 

উল্লেখ্য, গেল রোববার সন্ধ্যায় সোলার প্যানেলের শর্টসার্কিট হতে আগুন ধরে  নারাণগিরি বড়পাড়ার ৫২ টি ঘর সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে যায়। এতে কয়েক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : [email protected]
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত