লামায় এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ

Published: 05 Apr 2018   Thursday   

বিদ্যালয়ের ছুটির পর বাড়ী যাওয়ার পথে চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে একা পেয়ে জঙ্গলে টেনে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টার সময় লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিনের ৩নং ওয়ার্ডের দোছড়ি ওমর কাজীর রাবার বাগানে।

 

এ ঘটনায় বুধবার রাত ১১টার পর স্কুল ছাত্রীর মা আমেনা বেগম বাদী হয়ে ধর্ষণের চেষ্টাকারী মোঃ গিয়াস উদ্দিনকে আসামী করে লামা থানায় নারী ও শিশু নিযার্তন দমন আইনে মামলা রুজু করেন। আসামী মোঃ গিয়াস উদ্দিন উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের গয়ালমারা এলাকার সৈয়দ হোসেনের ছেলে।

 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক মোঃ খায়রুল বলেন, উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দোছড়ি মগপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর এক ছাত্রী বিকাল ৪টায় বিদ্যালয় ছুটির পর বাড়ী  যাওয়ার পথে একই ওয়ার্ডের মোঃ গিয়াস উদ্দিন একা পেয়ে রাস্তার পাশে ওমর ফারুকের রাবার বাগানের জঙ্গলে জোর করে টেনে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ওই সময় মেয়েটির চিৎকারে কয়েকজন পথচারী এগিয়ে গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে এবং ধর্ষণের চেষ্টাকারী গিয়াস উদ্দিনকে ধরে ফেলে। ঘটনাস্থলটি উপজেলা সদর থেকে প্রায় ৩৭ কিলোমিটার দূরে দূর্গম পাহাড়ী এলাকায়। ওই এলাকায় কোন নেটওয়ার্ক নেই। আসামীকে বৃহস্প্রতিবার লামা জুড়িসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

এলাকার ৩নং ইউপি`র মেম্বার মোহাম্মদ হোসাইন মামুনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিদ্যালয় থেকে স্কুল ছাত্রীটি বাড়ী যেতে প্রায় দু`ঘন্টা হেঁটে যেতে হবে। এ দীর্ঘ পাহাড়ী পথ বেয়ে প্রতিদিন বিদ্যালয়ে আসা যাওয়া করতে হয় মেয়েটিকে। ধর্ষনের চেষ্টার সময় মেয়েটির আত্মচিৎকারে রাস্তাদিয়ে হেটে যাওয়া লোকজন এগিয়ে গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে এবং ধর্ষণের চেষ্টাকারী মোঃ গিয়াস উদ্দিনকে ধরে আমার কাছে নিয়ে আসে। আমার কাছে নিয়ে আসার পূর্বে এলাকার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে খুব মারধর করে। রাতেই আমি লামা থানায় আসামীকে সোপর্দ করি।

 

লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বলেন, ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনাস্থলটি খুব দূর্গম এলাকায়। ওই এলাকায় কোন নেটওয়ার্ক না থাকায় মূহুর্তের মধ্যে ঘটনাটি জানা সম্ভব হয়নি। বৃহস্প্রতিবার লামা জুড়িসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত আসামী গিয়াসকে প্রেরণ করলে আদালত চিকিৎসা শেষে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : [email protected]
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত