লামায় খেলতে গিয়ে ভ্যানসহ নদীতে পড়ে এক শিশুর মৃত্যু

Published: 02 Apr 2018   Monday   

পানি টানার তিন চাকার ভ্যানে উঠে খেলতে গিয়ে ভ্যানসহ মাতামূহুরী নদীতে পড়ে প্রিয়ন্তী দাশ ছয় বছরের এক শিশুর করুন মৃত্যু হয়েছে। এ সময় অপূর্ব কর্মকার নাসে ৫ বছরের অপর এক শিশু আহত হয়েছে।

 

সোমবার দুপুর ২ ঘটিকার সময় লামা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের ছোট নুনারবিল মার্মা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটেছে।

 

নিহত প্রিয়ন্তী লামা পৌরসভার ছোট নুনারবিল পাড়ার তপন দাশের মেয়ে এবং আহত অপূর্ব কর্মকার একই এলাকার কালীশংকর কর্মকারের ছেলে। প্রিয়ন্তী দাশ নুনারবিল সরকারী মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেনীর ছাত্রী।

 

লামা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার সুভাস চন্দ্র বিশ্বাস জানান, সোমবার দুপুর ২ টার দিকে  মাথার বাম পাশ থেকে মগজ বেরুনো অবস্তায় প্রিয়ন্তী দাশকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্থানীয় লোকজন। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ ও মাথা থেকে মগজ বেরিয়ে যাওয়া প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দ্রুত চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ্যাম্বুলেন্সে করে নিয়ে যাওয়ার পথে শিশুটি মারা যায়।

 

লামা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ সাইফুদ্দিন বলেন, প্রিয়ন্তী দাশের বাবা একজন চা দোকানদার। নিজেদের দোকানের পানি টানার তিন চাকার একটি ভ্যানের উপর উঠে পাড়ার আরো কয়েকজন শিশুসহ প্রিয়ন্তী খেলা করতে গিয়ে হঠাৎ করে ভ্যানটিসহ মাতামূহুরী নদীতে পড়ে যায়। এ সময় বাঁশের কঞ্চি মাথায় ঢুকে প্রিয়ন্তীর মগজ বেরিয়ে যায়। চমেক হাসপাতালে নেয়া পথেই প্রিয়ন্তীর মৃত্যু হয়। এ সময় অপূর্ব কর্মকার নামের ৫ বছরের আরেক শিশু আহত হয়।

--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

উপদেষ্টা সম্পাদক : সুনীল কান্তি দে
সম্পাদক : দিশারি চাকমা
মোহাম্মদীয়া মার্কেট
কাটা পাহাড় লেন, বনরুপা
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা।
ইমেইল : [email protected]
সকল স্বত্ব hillbd24.com কর্তৃক সংরক্ষিত