• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
রাঙামাটিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত                    মহালছড়িতে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন                    খাগড়াছড়িতে কার্যাদেশের আগেই নিম্মমানের ইট দিয়ে রাস্তা নির্মাণ কাজ শেষের পথে                    বরকলে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত                    রাঙামাটিতে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা                    পানছড়ির শান্তিপুর অরন্য কুটিরে ৩০৮জনের গণ শ্রমণ ও প্রবজ্যা গ্রহণ সম্পন্ন                    রাঙামাটিতে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস পালিত                    বাঘাইছড়িতে সেনাক্যাম্প পূন:স্হাপনের দাবীতে মানবন্ধন ও প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্বারকলিপি প্রদান                    শহরের শিক্ষার সাথে দূর্গম এলাকার স্কুলের শিক্ষার মান বাড়াতে হবে                    চন্দ্রঘোনায় কবি সায়দুল সংবর্ধিত                    কাপ্তাইয়ে বন্য হাতিকর আক্রমণে নিহত ১                    আলীকদমে ভাইরাল হওয়া সেই ছবির ভিকটিম রুমপাও ম্রো’র সংবাদ সম্মেলন                    বরকলে বিশ্ব যক্ষ্মা দিবস পালিত                    রাঙামাটিতে বিশ্ব যক্ষ্মা দিবস পালিত                    পানছড়িতে ইপসা’র ‘‘সো” প্রকল্পের ভিশনিং কর্মশালা                    প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যান তহবিল থেকে বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যান ট্রাষ্টের অনুদানের চেক প্রদান                    বিলাইছড়িতে আওয়ামীলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় মামলা,সন্দেহভাজন হিসেবে স্নেনাশীষ চাকমাকে আটক                    বাঘাইছড়ি সহিংস ঘটনায় নিহত আনসার ৪ সদস্যের পরিবারের মাঝে নগদ প্রদান                    বাঘাইছড়িতে সহিংস ঘটনায় আনসার সদস্যর খোয়া যাওয়া রাইফেলটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার                    বাঘাইছড়ির হত্যাকান্ডটি ছিল পরিকল্পিত প্রাথমিক তদন্তে পেয়েছেন-তদন্ত কমিটির প্রধান                    খাগড়াছড়িতে জেলা ও দায়রা জজ রোখসানা পারভীন’র বিদায় সংবর্ধনা                    
 

পার্বত্য চট্টগ্রামে আর কোন সংঘাত নয়,শান্তির মধ্য দিয়ে আসবে সমৃদ্ধি-প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 28 Oct 2018   Sunday

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে আর কোনো সংঘাত নয়, শান্তির মধ্য দিয়ে আসবে সমৃদ্ধি। ‘আমরা পার্বত্য চট্টগ্রামে আর কোন অশান্তি ও সংঘাত চাই না। আমরা চাই ওই অঞ্চলের লোকেরা ভাল থাকুক এবং সেখানে শান্তি বজায় থাকুক।’

 

তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামে (সিএইচটি) ভূমি বিরোধ নিরসনে ভূমি কমিশনকে সহযোগিতা করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।


রোববার বিকেলে রাজধানীর বেইলী রোডে শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্সের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির ভাষনে তিনি একথা বলেন।

 

পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্সের ভিত্তিফলক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী. বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি  ছিলেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, পার্বত্য শান্তিচুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা ওরফে সন্তু লারমা এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র.আ.ম ওবায়দুল মুক্তাদির চৌধুরী। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্র মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুল আমিন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে মন্ত্রী পরিষদ সদস্যরা, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাবৃন্দ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, বিদেশি কূটনিতিকগণ, উন্নয়ন সয়স্থার প্রতিনিধিবৃন্দ এবং বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়ন অগ্রগতির ওপর একটি ভিডিও চিত্র প্রদর্শিত হয়।

 

সরকার প্রধান আরো বলেন, সরকার শান্তি চুক্তির অধিকাংশই বাস্তবায়ন করেছে, বাকীগুলোও বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। তিনি বলেন, বিভিন্ন পক্ষের বিরোধিতার পরেও যে পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি হয়েছে তার পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন করা হবে। 


প্রধানমন্ত্রী বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের ভূমি সমস্যা সমাধানের জন্য ভূমি কমিশন গঠন করে দেয়া হয়েছে। ভূমি কমিশনকে পার্বত্যবাসীর সহায়তা করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।


প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের জন্য বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষা, যোগাযোগসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন করা হয়েছে। সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিল করা হলেও পার্বত্য চট্টগ্রাম ও সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জন্য অগ্রাধিকার দিতে পিএসসিকে নির্দেশনা দেয়া আছে।


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্তি চুক্তি মোতাবেক তাদেরকে আমরা পুনর্বাসন করি। চুক্তি অধিকাংশই আমরা বাস্তবায়ন করেছি। তবে এখনো কিছু চলমান রয়েছে। এর বাইরেও আমরা সার্বক্ষণিক উন্নয়নের জন্য ব্যাপক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে দিয়েছি। রাস্তাঘাটের উন্নয়ন করেছি। যার ফলে আর্থ-সামাজিক ভাবে মানুষ উন্নয়ন হয়েছে। সারা বাংলাদেশে আমরা যে উন্নয়ন করেছি, পার্বত্য চট্টগ্রামে আরো বিশেষভাবে বরাদ্দ দিয়েছি, প্রকল্প দিয়েছি। দুই দশকে এই অঞ্চল অবহেলিত ছিল। তাই আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করে সেখানে আমরা বরাদ্দ দিয়েছি।


প্রধানমন্ত্রী  বলেন, যদিও আমরা কোটা প্রত্যাহার করেছি। তবে, সেখানে আমরা নির্দেশ রয়েছে। আমি পিএসসিকে বলে দিয়েছি পার্বত্য চট্টগ্রাম বা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী পাহাড়ি হোক, সমতল হোক সেখানে যে প্রাপ্তি  থাকবে, তা চাইলে দিতে পারবে।

 

পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা(সন্তু লারমা) বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি (সিএইচটি ল্যান্ড কমিশন)  কমিশন ও পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি যথাযথভাবে বাস্তবায়িত হয়নি। এ কারণে পার্বত্য পরিস্থিতি অস্থিতিশীল, উদ্বেগজনক ও হতাশাব্যাঞ্জক হয়ে উঠছে। তিনি আরও বলেন, জাতীয় স্বার্থে পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়ন জরুরি হয়ে পড়েছে।

এই বিভাগের সর্বশেষ
আর্কাইভ