• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
পানছড়িতে চাকমা ভাষা কোর্সের সার্টিফিকেট বিতরণ                    অবৈধ অস্ত্রধারীরা সরকারের উন্নয়ন কাজে বাঁধা দিচ্ছে,জনগণকে প্রতিহতের আহ্বান                    দেড়যুগ পরও এমপিও হয়নি ঘাগড়া কলেজটি,মানবেতর জীবনযাপন করছেন শিক্ষক-কর্মচারীরা                    খাগড়াছড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে ব্যবসায়ী আহত                    ব্লাস্ট রাঙামাটি ইউনিটের উপকারভোগীদের সাথে পর্যালোচনা সভা                    বিলাইছড়ির মেরাংছড়া বিদ্যালয়ে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ                    কাপ্তাইয়ে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষ্যে র‍্যালি, আলোচনা সভা ও পোনা অবমুক্তকরন                    রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত                    জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে রাঙামাটিতে বর্ণাঢ্য র‌্যালি, পোনা অবমুক্তকরণ ও আলোচনা সভা                    রাঙামাটিতে ৭৩টি বৌদ্ধ বিহারসহ চিকিৎসা সহায়তার অনুদান প্রদান                    খাগড়াছড়িতে তিন পরিবহন শ্রমিককে সাড়ে সাত লক্ষ টাকা মৃত্যু সাহায্য প্রদান                    জুরাছড়িতে নিরবিচ্ছন্নভাবে বিদ্যুৎ চালু না রাখলে বিল পরিশোধ থেকে বিরত ও বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও হুমকি                    রাঙামাটিতে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কার্যক্রম বাস্তবায়ন জোরদার বিষযক সেমিনার                    রাঙামাটিতে যত্রতত্র নৌ-যান রাখার দায়ে ভ্রম্যমান আদালতের জরিমানা                    বিলাইছড়িতে জনগোষ্ঠীর জলবায়ু বিপদাপন্নতা নিরূপন বিষয়ক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন                    জুরাছড়িতে ছাত্রলীগ কমিটি গঠন                    রাঙামাটিতে এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮ জন                    রাজস্থলীতে গাইন্দ্যা ইউপির বাজেট ঘোষনা                    জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে মহালছড়িতে সংবাদ সম্মেলন                    রাঙামাটির ঝুলন্ত সেতু দেড় ফুট পানির নিচে                    কাপ্তাই হ্রদে পানির উচ্চতা বৃদ্ধিতে প্রতি সেকেন্ডে ২৭ হাজার কিউসেক পানি ছাড়া হচ্ছে                    
 

রাঙামাটির ভারবোয়াচাপ বন বিহারে দুদিনের কঠিন চীবর দানোৎসব সমাপ্ত
চুক্তি বাস্তবায়িত হলে পাহাড়ের মানুষ নিরাপদে সুষ্ঠভাবে ধর্ম পালন করতে পারবে-উষাতন তালুকদার এমপি

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 26 Oct 2018   Friday

রাঙামাটি আসনের নির্বাচিত সাংসদ উষাতন তালুকদার ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর সম্পাদিত পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি যথাযথ বাস্তবায়ন হলে পাহাড়ের মানুষ নিরাপদে সুষ্ঠভাবে তাদের ধর্ম পালন করতে পারবে বলে মন্তব্য করেছেন। 

 

তিনি বলেন, ধর্ম পালনে শুধু সেই সময় নিরাপত্তা দিলে হবে না, সবাই চাই সমাজে সুষ্ঠুভাবে নিরাপদ জীবন যাপন করা, মানুষ যাতে ভালভাবে চলাচল ও খাওয়া-দাওয়া করতে পারে। তাই এই ধর্মীয় পূর্নক্ষেত্রে মধ্য দিয়ে প্রার্থনা করি প্রধানমন্ত্রীর যেন হেতু উৎপন্ন হয় যাতে পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নে মনের মধ্যে জাগ্রতবোধ উদয় হোক।


তিনি বলেন,গত সোমবার রাতে খাগড়াছড়ির গুইমারা জেতবন বৌদ্ধ বিহারে কে বা কারা বুদ্ধ মূর্তি উল্টে দিয়েছে। যখন সরকার নির্বাচন করতে চাইছে, যেখানে প্রবারনা পূর্নিমা পালিত হবে, কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হবে সেই সময়ে এই দুর্ঘটনা ঘটনা ঘটানো হয়েছে। এখানে মার সৃষ্টি হয়েছে।


তিনি বুদ্ধ ধর্মে যে শীল-নীতি রয়েছে তা যথাযথভাবে পালন করতে এবং যে যার অবস্থানে থেকে মৈত্রীভাবাপন্ন নিয়ে সবাইকে একতাবদ্ধভাবে থাকার আহ্বান জানান।


শুক্রবার রাঙামাটির বন্দুকভাঙ্গা ইউপি’র ভারবোয়াচাপ বন বিহারে ২৩তম কঠিন চীবর দানোৎসবের দুদিন ব্যাপী শেষ দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।


ভারবোয়াচাপ বন বিহার প্রাঙ্গনে আয়োজিত ধর্মীয় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি আসনের সাংসদ উষাতন তালুকদার। স্বধর্ম দেশনা দেন ভারবোয়াচাপ বন বিহারে অধ্যক্ষ ধর্মতিলক মহাস্থবির. বক্কুলী মহাস্থবির, প্রজ্ঞারতœ মহাস্থবির ও সুধর্ম্মা মহাস্থবির। অনুষ্ঠানে বক্তব্যে দেন ভারবোয়াচাপ বন বিহারে সভাপতি চন্দ্র কুমার চাকমাও সাধারণ সম্পাদক বক্রসেন চাকমা। এ পূর্নানুষ্ঠানে মহাপূর্নবর্তী বিশাখা প্রবর্তিত ২৪ ঘন্টার মধ্যে তৈরীকৃত কঠিন চীবর উষাতন তালুকদার এমপি বিহারের প্রধানের উদ্দেশ্য প্রদান করেন। এর আগে বুদ্ধ ধর্মীয় সংগীত দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। পরে পঞ্চলশীল প্রার্থনা,অষ্টপরিস্কার দান, কঠিন চীবর, কল্পতরু, হাজার বাতি ও বুদ্ধ মূর্তি দান উৎস্বর্গ করা হয়। অনুষ্ঠানে শত শত বৌদ্ধ পূর্নাথীরা সমবেত হন।


ধর্মীয় দেশনায় বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরুরা কৌশল কর্ম, সৎ চেতনা ও সৎ জীবন নিয়ে জীবনযাপন করতে এবং সকল প্রাণীর প্রতি মৈত্রী, অহিংসা ভাব পোষন করে সকলকে বুদ্ধ ধর্ম পালনের জন্য হিতোপোদেশ দেন।


উল্লেখ্য, আজ থেকে প্রায় আড়াই হাজার বছর আগে ভগবান গৌতম বুদ্ধের জীবব্দশায় মহাপূর্নবতী বিশাখা কর্তৃক প্রবর্তিত ২৪ ঘন্টার মধ্যে সূতা কাটা শুরু করে কাপড় বয়ন, সেলাই ও রং করাসহ যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের দান করা হয় বলে একে কঠিন চীবর দান হিসেবে অভিহিত করা হয়।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

আর্কাইভ