• Hillbd newsletter page
  • Hillbd rss page
  • Hillbd twitter page
  • Hillbd facebook page
সর্বশেষ
রাঙামাটিতে তিন নারী সংগঠনের যৌথ কাউন্সিল অনুষ্ঠিতঃ নতুন কমিটি গঠন                    কাউন্সিল আয়োজনে প্রশাসনের বাধাদানের প্রতিবাদে কতুকছড়িতে বিক্ষোভ-সমাবেশ                    রাঙামাটিতে ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত                    রাঙামাটি জেলা পরিষদ জেলাবাসীর আর্থসামাজিক উন্নয়নে কাজ করছে-বৃষকেতু চাকমা                    খাগড়াছড়িতে শেখ রাসেলের ৫৩তম জন্ম দিন পালিত                    পানছড়ি জনকল্যাণ বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবরদান অনুষ্ঠিত                    পাকুজ্জ্যাছড়ি ও সাপমারা প্রাথমিক বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন                    পাহাড়ে এখন শান্তির সুবাতাস বাইছে- রাঙামাটি রিজিয়ন কমন্ডার                    কাপ্তাইয়ে একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত                    সামাজিক ক্ষেত্রে অবদান রাখায় সাত গুনী ব্যক্তিকে সন্মাননা দিয়েছে মোনঘর                    রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে বিসিএস প্রশিক্ষণার্থীদের সাক্ষাত                    বরকলে গাঁজাসহ শ্বশুড় ও পুত্রবধু আটক                    গ্রীনহীলের কৃষি ও প্রাণী সম্পদ বিষয়ে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কর্মশালা                    জুরাছড়ির আমতলী ধম্মোদয় বন বিহারে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত                    পানছড়িতে জনসংঘ বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবরদান অনুষ্ঠিত                    চন্দ্রঘোনা খ্রীষ্টিয়ান হাসপাতালে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্ধোধন                    শিশুদের সৃজনশীল বিকাশে রাঙামাটিতে দুদিনের চিত্র প্রদর্শনী সমাপ্ত                    রাঙামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপকমিটির ১৮ সদস্যর পদত্যাগ                    রাঙামাটিতে শ্রমিকদলের বিক্ষোভ-মিছিল পুলিশি বাধায় পন্ড                    রাঙামাটি জেলা পরিষদের সাথে ইউএনডিপি’র বিশেষজ্ঞ দলের সৌজন্য সাক্ষাত                    খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ভূয়া সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে রাঙামাটিতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ                    
 

রাঙামাটিতে মাসব্যাপী বৌদ্ধদের প্রধান উৎসব দানোত্তম কঠিন চীবর দান শুরু

স্টাফ রিপোর্টার : হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published: 06 Oct 2017   Friday

পঞ্চশীল প্রার্থনা, ধর্মীয় সঙ্গীত ও ধর্মীয় নানা আচার অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে রাঙামাটির আসামবস্তী বুদ্ধাংকুর বৌদ্ধ বিহারে বৌদ্ধদের প্রধান ধর্মীয় অনুষ্ঠান দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব উদযাপিত হয়েছে। বৌদ্ধ ভিক্ষুরা তিন মাস বর্যাবাস শেষে মাস ব্যাপী বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারে পর্যায়ক্রমে এই দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। 

 

বুদ্ধাংকুর বৌদ্ধ বিহার ও রাঙামাটি বড়ুয়া জনকল্যাণ স্ংস্থার উদ্যোগে বিহার প্রাঙ্গনে আয়োজিত বিহারের ১৮তম দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব উপলক্ষে ধর্মসভায় প্রধান ধর্মদেশক হিসেবে স্বধর্ম দেশনা দেন সংঘরাম বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ধর্মকৃতি মহাথেরো। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী।

 


বিহার পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি রনজিৎ কুমার বড়–য়ার সভাপতিত্বে ধর্মীয় সভায় বক্তব্যে দেন বুদ্ধাংকুর বৌদ্ধ বিহারের করুনাময় ভিক্ষু, রাঙ্গাপানি মিলন পুর বিহারের আবাসিক ভিক্ষু প্রজ্ঞাদীপ্তি ভিক্ষু ও বিহার পরিচালনা কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আশিষ বড়–য়া। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রাঙামাটি বড়ুয়া জনকল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক উদয়ন বড়ুয়া। অনুষ্ঠানে বুদ্ধাংকুর স্মরণিকা নামে একটি সংকলনের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। অনুষ্ঠানে শত শত বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষ অংশ গ্রহণ করেন। এছাড়া সন্ধ্যায় মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও বৌদ্ধ কীর্তনানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।


এর আগে কঠিন চীবর দান উপলক্ষে বুদ্ধাংকুর বৌদ্ধ বিহারে ভোরে প্রার্থনা ও সূত্র পাঠের মধ্য দিয়ে ধর্মীয় উৎসবের কর্মসূচির সূচনা করা হয়। এছাড়া কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকালে পুষ্পপূজা ও ভিক্ষু সংঘের প্রাতঃরাশ, জাতীয় পতাকা ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন, বুদ্ধপূজা, শীল গ্রহণ, সংঘদান ও ভিক্ষু সংঘের ধর্মদেশনা, অনুত্তর পুন্যক্ষেত্র ভিক্ষুসংঘকে পিন্ডদানসহ ইত্যাদি।



প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও মানব কল্যানে বিশ্বাসী। বাংলাদেশে পালিয়ে আসা নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের পাশে দাড়িয়ে বিশ্বে আবারও প্রমান করেছে এই সরকার মানব কল্যানে বিশ্বাসী। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় এ অঞ্চলের মানুষের সম্প্রীতি অটুট রাখতে আমাকে পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীক দিয়ে নির্বাচনে দাঁড় করিয়েছেন এবং আমাকে যোগ্য মনে করে সকল ধর্ম-বর্নের মানুষ ভোট দিয়ে জয়ী করেছেন।


তিনি সকল সম্প্রদায় যাতে যার যার ধর্ম সঠিকভাবে পালন করতে পারে সে লক্ষ্যে রাঙামাটির পৌরসভার পক্ষে যতটুকু সম্ভব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সহায়তার আশ্বাস এবং সকল সম্প্রদায় যাতে যার যার ধর্ম উৎসব সঠিকভাবে পালন করতে পারে সে লক্ষ্যে সবাই সহযোগিতা কামনা করেন।


ধর্মালোচনা সভায় ধর্মীয় ভিক্ষুরা বলেন, পঞ্চশীল গ্রহণ করে বুদ্ধের বাণীগুলো যথাযথ ভাবে অনুসরণ ও সংঘাত পরিহার করে মৈত্রী ভাবনা চর্চা করলে সৎ পথে এগোনো সম্ভব। ধর্মীয় ভিক্ষুরা বলেন, গৌতম বুদ্ধের শিক্ষা ও আদর্শের প্রতি সকলকে আদর্শবান হয়ে মিথ্যাকে পরিহার করে পৃথিবীর সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যেতে হবে। তা হলেই বিশ্বে উন্নয়ন ও শান্তি ফিরে আসবে।
--হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

আর্কাইভ